সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

জগন্নাথপুরে রাজনৈতিক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি নেতাদের আচরণবিধিতে সাক্ষর

স্টাফ রির্পোটার ::

মর্যাদা, নিরাপত্তা, বহুত্ববাদ ও শান্তি-সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় রাজনৈতিক দলসমূহের মধ্যে আচরণবিধি স্বাক্ষর করেছে জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ও জাতীয় পার্টি নেতারা।

“সংঘাত নয় ঐক্যের বাংলাদেশ চাই” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জগন্নাথপুর পৌর চত্ত্বরে সর্বদলীয় সম্প্রীতি উদ্যোগ জগন্নাথপুর (পিএফজি)’র উদ্যোগে ও হ্যাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের সহযোগিতায় এক ব্যতিক্রমী আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়।
সর্বদলীয় সম্প্রীতি উদ্যোগ জগন্নাথপুর’র কো-অর্ডিনেটর ড. মাওলানা মঈনুল ইসলাম পারভেজ এর সভাপতিত্বে ও সংগঠনের পিস এম্বাসেডর ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম লাল মিয়ার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা বিএনপির সভাপতি বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ আবু হুরায়রা ছাদ মাস্টার, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র মিজানুর রশীদ ভূইয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সাবেক কাউন্সিলর মোঃ খলিলুর রহমান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল হোসেন লালন, সাবেক পৌর কমিশনার ও আওয়ামী লীগ নেতা লুৎফুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জয়দ্বীপ সূত্রধর বীরেন্দ্র, পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র কাউন্সিলর শফিকুল হক শফিক, উপজেলা আল ইসলাহ’র সাবেক সভাপতি মাওলানা আজমল হোসাইন জামী,

ঘোষগাও মোল্লাবাড়ি জামে মসজিদের ইমাম মোঃ আব্দুল কাইয়ূমের কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুফিয়া খানম সাথী, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল কাইয়ূম মোশাহিদ, জগন্নাথপুর উপজেলা আল ইসলাহ সভাপতি মাওলানা মহি উদ্দিন এমরান, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা নুর আহমদ, উপজেলা কোর্ট জামে মসজিদের সাবেক ইমাম মাওলানা নিজাম উদ্দিন জালালী, সর্বদলীয় সম্প্রীতি উদ্যোগ জগন্নাথপুর এর সদস্য, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপি নেতা সামছুল হক, মোঃ দিলু মিয়া, মুহিবুর রহমান শিশু, আওয়ামীলীগ নেতা আলাউর রহমান, লক্ষী রানী দাস, শিপ্রা রানী দাস, জাতীয় পার্টি নেতা আব্দুল কাহার, আকলিছ আলী, আব্দুস শহীদ, আবদুর রহমান, উলামা পার্টির আহবায়ক শাহ মোঃ শানুর আলী, জগন্নাথপুর প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি রিয়াজ রহমান, সহ সভাপতি হুমায়ুন কবির, কোষাধ্যক্ষ আলী হোসেন খান প্রমূখ।
সভায় রাজনৈতিক সহিংসতা, প্রতিরোধ ও উপজেলায় শান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করার অঙ্গিঁকার ব্যক্ত করে কোড অব কন্ট্রাক পেপারে আচরণবিধিতে সাক্ষর করেন আওয়ামীলীগ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মিজানুর রশীদ ভূইয়া, উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু হুরায়রা ছাদ মাস্টার, জাতীয় পার্টির সভাপতি মোঃ খলিলুর রহমান।

এ সময় বক্তারা বলেন, এই মহতি উদ্যোগ যেন বাংলাদেশের জন্য মাইলফলক হয়। রাজনীতির উর্ভর ভূমি জগন্নাথপুর উপজেলায় অতীতও সম্প্রীতি ছিলো এখনও আছে।
বক্তারা আরো বলেন, রাজনৈতিক কর্মসূচী পালনের ক্ষেত্রে সহিংসতাকে সর্বতোভাবে পরিহার করে ব্যক্তির জান-মাল ও সম্পদের নিরাপত্তার প্রতি সর্বোচ্চ শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। প্রতিপক্ষ দল বা ব্যক্তির প্রতি আচরণ ও সম্ভাষণে সৌজন্য ও সৌহার্দ্যপূর্ণ থাকতে হবে। প্রতিপক্ষের জন্যে মর্যাদাহানীকর কোনও বক্তব্য প্রদান, কটূক্তি করা থেকে বিরত থেকে সুস্থ রাজনৈতিক সংস্কৃতির ধারা গড়ে তোলতে হবে।
আমরা নির্বাচন কমিশন ঘোষিত নির্বাচনী আচরণবিধি যথাযথ ও আন্তরিকতার সাথে পালন করার মাধ্যমে আইনী বিবেচনায় যে কোনও ধরণের সহিংসতা থেকে বিরত থাকতে হবে।
এ সময় হ্যাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের সিলেট অঞ্চলের আঞ্চলিক সমন্নয়ক মোজাম্মেল হক ও সিলেট অঞ্চলের হিসাব রক্ষক একে কুদরত পাশা সহ নানা শেণী-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ