সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

জগন্নাথপুর আ,লীগের শান্তি সমাবেশে,একাংশ নেতাকর্মীদের বয়কট

মো, আলী হোসেন খান:

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বিএনপির নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে শান্তি সমাবেশে উপজেলা আওয়ামী লীগের দুটি গ্রুপে হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জগন্নাখপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মিজানুর রশীদ ভুঁইয়া ও তার নিজ বলয়ের লোকজন মঞ্চ ও সমাবেশস্থল ত্যাগ করে। এ সময় সমাবেশস্থলে হট্টগোল দেখা দিলে পুলিশ ও নেতৃবৃন্দের তৎপরতায় কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের নির্দেশনায় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড জনসম্মুখে প্রচারও স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আজ বৃহস্পতিবার বেলা ২ টায় জগন্নাথপুর পৌর পয়েন্টে শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নোমান বখত পলিন, প্রবীণ রাজনীতিবিদ সিদ্দিক আহমেদ, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সহ সুনামগঞ্জ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
সভা পরিচালনা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু। এক পর্যায়ে সভা অনুষ্ঠিত হলে মঞ্চে উপস্থিত নেতৃবৃন্দের নাম ও পদবি ঘোষণা করা হয়। কিন্তু উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া মঞ্চে উপস্থিত থাকলে তাকে সহ সভাপতি ঘোষণা করা হয়। এর পরে জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি সিদ্দিক আহমদকে মঞ্চে সভাপতিত্ব করার জন্য নাম ঘোষণা করা হয়। এতে মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া জানতে চাইলে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ সদুত্তর দেননি। এক পর্যায়ে মাইকে তিনি উপস্থিত নেতৃবৃন্দ ও জনতার উদ্দেশ্যে কিছু বলতে চাইলে তার হাত থেকে মা্ইক্রোফোন কেড়ে নেওয়া হয়।
এ সময় মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া ও তার অনুসারীরা সমাবেশ স্থল ত্যাগ করে চলে যান। পরে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে সমাবেশ স্থলের অদূরে জগন্নাথপুর টিএন্ডটি রোডস্থ পুরাতন কাঠবাজারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া সভাপতিত্বে ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুক্তাদির আহমদের পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জগন্নাথপুর পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক হাজী ইকবাল হোসেন ভূঁইয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জয়দ্বীপ সূত্রধর বীরেন্দ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক আব্দুল জব্বার, সাবেক কাউন্সিলর আবাব মিয়া, উপজেলা আ্ওয়ামী লীগের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক কুতুব উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আব্দুর রাজ্জাক, শুকুর আলী, সুরত খাঁ, উপজেলা যুবলীগ নেতা মোঃ নানু মিয়া, সৈয়দ তুরন মিয়া. পাইলগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা কাউসার রশিদ, রানীগঞ্জ ইউনিয়ন আ্ওয়ামী লীগ নেতা সোহেল মিয়া প্রমুখ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ