শনিবার, ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

আরও ১৯০৪ জন ম্যাজিস্ট্রেট চায় ইসি

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীদের আচরণবিধি মানাতে ও শৃঙ্খলা বজায় রাখতে আরও ১ হাজার ৯০৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট চেয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) নির্বাচন পরিচালনা শাখার উপ-সচিব আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই চাহিদার কথা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবকে জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়েছে, আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আচরণবিধি প্রতিপালন নিশ্চিতকরণের পাশাপাশি ভোটগ্রহণের দু’দিন আগে ও পরে দু’দিন পর পর্যন্ত মোট ৫ (পাঁচ) দিনের জন্য নির্বাচনী এলাকার সার্বিক শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ প্রতিরোধের জন্য এবং মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্সের সাথে বিশেষ করে বিজিবি, কোস্টগার্ড ও সশস্ত্র বাহিনীর টিমের সাথে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিতকরণের প্রয়োজন হবে। উল্লেখ্য, সূত্রোক্ত ১নং পরিপত্রের নির্দেশনা মোতাবেক বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সশস্ত্র বাহিনী দায়িত্ব পালন করবে।

আরও পড়ুন
নির্বাচনে খুব বেশি সহিংসতা হয়নি: সিইসি

পাশাপাশি ৬৪টি জেলার ম্যাজিস্ট্রেটদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য মতে বিভাগ অনুযায়ী নিম্নরূপ সংখ্যক অতিরিক্ত এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের প্রয়োজন হবে এবং নির্বাচন কমিশন কর্তৃক তাদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ আয়োজনের সিদ্ধান্ত রয়েছে।

সেখানে আরও জানানো হয়, এই ১ হাজার ৯০৪ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৩৮৮ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ১২৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩৭৬ জন, সিলেট বিভাগে ১৪৪ জন, রাজশাহী বিভাগে ২১৯ জন, বরিশাল বিভাগে ১৮৬ জন, খুলনা বিভাগে ১৮৩ জন ও রংপুর বিভাগে ২৮২ জনের চাহিদা দিয়েছে ইসি।

ইসি ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দের পর এখন চলছে প্রচারণা। যা শেষ হবে আগামী ৫ জানুয়ারি। এক দিন বিরতি দিয়ে ৭ জানুয়ারি সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত স্বচ্ছ ব্যালট পেপারের মাধ্যমে চলবে ভোটগ্রহণ।

 

জগন্নাথপুর পত্রিকা/ ডেস্ক /আলী/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ