বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

জগন্নাথপুরে যুক্তরাজ্য প্রবাসীকে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে হয়রানির এলাকাবাসীর নিন্দা

নিজস্ব প্রতিবেদক ::

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের চিলাউড়া (আশিঘর) গ্রামের মৃত হারিছ উল্লার ছেলে যুক্তরাজ্য প্রবাসী আরজু মিয়ার বিরুদ্ধে জগন্নাথপুর থানায় মিথ্যা অভিযোগ করায় এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ সাধারণ মানুষ। তথ্য অনুসন্ধানে, এলাকাবাসী সুত্রে ও বিবাদী পক্ষের মাধ্যমে জানা যায় দীর্ঘদিন ধরে আশিঘর গ্রামের মৃত শানুর মিয়ার সাথে জায়গা জমি নিয়ে পাশের বাড়ীর হারিছ উল্লার ছেলে যুক্তরাজ্য প্রবাসী আরজু মিয়ার সাথে বিরোধ চলে আসছিল।
এরই জের ধরে গত ১৯/২০ মার্চ মঙ্গল ও বুধবার বাড়ি ও বাড়ীর পার্শ্ববর্তী ভুমি সার্ভেয়ার দারা মাপজোক করে সমাধানের সিদ্ধান্ত হয়।
পরদিন ২১ মার্চ বৃহস্পতিবার মৃত শানুর মিয়ার ছেলে শাহ রিয়ার সাকিব সমাধানকে অসিকার করে মাদের মনমত না হাওয়াতে আরজু মিয়ার লোকজনকে জানায়। ঐ দিন বিকালে তাদের দুইজন আহত প্রথমে জগন্নাথপুর হাসপাতালে ভর্তি করে পরবর্তীতে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে রেপাড দেখিয়ে আরজু মিয়াকে প্রধান আসামী করে ৬ জনের বিরুদ্ধে জগন্নাথপুর থানায় মারামারির অভিযোগ দায়ের করেন। এরি পেক্ষিতে আজ ২২ মার্চ শুক্রবার বাদ জুম্মা গ্রামের গণ্যমাণ্য ও শালিসি ব্যক্তিবর্গ সহ সাবেক জনপ্রতিনিধিগণ এই মিথ্যা অভিযোগের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চিলাউড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বজলু মিয়া, সাবেক মেম্বার ছব্বির আহমদ, ফারুজ মিয়া, আপ্তাব আলী, আব্দুল জলিল, আব্দুল হান্নান, আজাদ মিয়া, একলাছুর রহমান, শিবলু মিয়া, আল আমিন, সাহাদ মিয়া ও হাছিনা বেগম, সহ এলাকার অসংখ্য গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ।উপস্থিত তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ কারীগণ বলেন বৃহস্পতিবার মৃত শানুর মিয়া ও আরজু মিয়ার বাড়ীতে বা রাস্তা কোনো ধরনের দাঙ্গা হাঙ্গামার বিষয়টি দেখিনি এমনকি শুনিনি বিষয়টি সম্পুন মিথ্যা ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত কাল্পনিক ঘটনা।এটি একটি সাজানো নাটক। এই মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে প্রবাসীকে হয়রানি করছে একটি চক্র।

এই বিষয়ে যুক্তরাজ্য প্রবাসী আরজু মিয়া বলেন শাহ রিয়ার সাকিব এর পিতা মৃত শানুর মিয়া সাথে ভুমি নিয়ে আদালতে মামলা রয়েছে। এবং আমি দেশে আসলে একটি কুচক্রী মহল আমাকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করার জন্য উঠে পরে লাগে। এর ধারাবাহিকতা গতকাল বৃহস্পতিবার আমি বাড়ীতে ছিলামনা এরপরও মারামারির নাটক সাজিয়ে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে।

চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড মেম্বার সুজাদ মিয়া বলেন আমার ওয়ার্ডে এধরনের কোনো ঘটনা আমি দেখিনি এবং কেনো পক্ষ এই বিষয়ে আমাকে অবগত করেনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ