সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

নারীসহ কেএনএফের আরও তিন সহযোগী গ্রেপ্তার

বান্দরবানের রুমায় যৌথবাহিনীর অভিযানে সোনালী ব্যাংকে হামলা, টাকা ও অস্ত্র লুটের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় কুকিচিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের কেএনএফ-এর সহযোগী হিসেবে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- রুমা উপজেলার ইডেন পাড়ার বাসিন্দা লাল রিন তোয়াং বম (২০), ভান নুয়াম থাং বম (৩৭) এবং ভান লাল থাং বম (৪৫)।

এদিকে, পাহাড়ের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন কেএনএফের প্রধান নাথামং বমের স্ত্রী লেনসমকিম বমসহ দুই সিনিয়র স্টাফ নার্সকে রুমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে লালমনিরহাট জেলায় স্ট্যান্ড রিলিজ করেছে বান্দরবান জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

এ নিয়ে পাহাড়ে যৌথ বাহিনীর সাঁড়াশি অভিযানে ৫৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গত ২ এপ্রিল বান্দরবানের রুমা উপজেলার সোনালী ব্যাংকে হামলা, টাকা ও অস্ত্র লুটের ঘটনায় দায়েরকৃত পাঁচটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে কেএনএফএর সহযোগী হিসেবে যৌথবাহিনীর সদস্যরা তাদের ১১ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) দুপুরে রুমা থেকে গ্রেপ্তার করে। পরে যাচাই বাচাই শেষে তাদের বিকেলে রুমা থানা থেকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বান্দরবান চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হয়।

পরে বান্দরবান চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নাজমুল হোছাইনের আদালত আসামিদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হোসাইন মো. রায়হান কাজেমী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বান্দরবানের রুমা ও থানচিতে ঘটনার পর এ পর্যন্ত নয়টি মামলা দায়ের করা হয়েছে (রুমা ৫, থানচি ৪) এবং এ ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে এই পর্যন্ত ৫৮ জনকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তথ্য সুত্র, দৈনিক বাংলাদেশ জার্নাল

সংশ্লিষ্ট সংবাদ