jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ৬ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» সিলেট-২ আসনে প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী পেলেন প্রতিক «» হবিগঞ্জে বিল দখল নিয়ে সংঘর্ষ: নিহত ১, আহত ২০ «» সিলেট-২ আসনে ইলিয়াসপত্নী লুনার প্রার্থীতা স্থগিত «» সুনামগঞ্জ-৫ অাসনে বিনা ভোটে অার সংসদ সদস্য নয়- মিজানুর রহমান চৌধুরী «» নৌকার বিজয়ের মাধ্যমে শেখ হাসিনাকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনতে হবে- মুহিবুর রহমান মানিক «» সুনামগঞ্জ-৩ অাসনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে মাঠে নামবেন অাজিজুস সামাদ ডন «» জগন্নাথপুরে বিএনপি থেকে অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী অাওয়ামীলীগে যোগদান «» বিশ্বনাথে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে প্রার্থীকে জরিমানা «» জগন্নাথপুরে আত্মহত্যার প্রতিকার বিষয়ে সেমিনার «» ওসমানীনগরে ডাকাতের উপদ্রব জনমনে আতংক


সারাদেশে নৌকার কাণ্ডারি হলেন যারা

জগন্নাথপুর পত্রিকা ডেস্ক :: বড় কোন চমক না থাকলেও বেশ কিছু আসনে নতুন মুখ নিয়ে এসেছে আওয়ামী লীগ। ভাগ্য বিপর্যয় ঘটেছে ৩৮ এমপির। তবে প্রার্থী তালিকায় যে বড় পরিবর্তনের কথা বলা হয়েছিল শেষ পর্যন্ত আর তা হয়নি। বর্তমান এমপিদের ওপর ভরসা রেখেই নির্বাচনী বৈতরণী পার হওয়ার লড়াইয়ে নামছে আওয়ামী লীগ। ২৩০টি আসনে প্রার্থীদের প্রাথমিক প্রত্যয়নপত্র দিয়েছে আওয়ামী লীগ। গতকাল সকাল থেকে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থীদের হাতে দলীয় প্রধানের চিঠি দেয়া শুরু হয়। অবশ্য আজ আনুষ্ঠানিকভাবে দল এবং জোটের প্রার্থীদের নাম প্রকাশ করবে আওয়ামী লীগ। বিশ্লেষণে দেখা গেছে, প্রায় ১৭ জন নারীকে মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

 

সংখ্যালঘু সম্প্রদায় থেকেও প্রার্থী হচ্ছেন ১৭ জন। জানা গেছে, যেসব আসনে প্রার্থী পরিবর্তন করা হয়েছে সেখানে রয়েছে নানা সমীকরণ।

 

দলীয় কোন্দল কিংবা বর্তমান এমপির ইমেজের কারণে প্রার্থী পরিবর্তন করা হয়েছে। দলের দুই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান গতকাল পর্যন্ত চিঠি পাননি। তাদের আসনে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম ও বিএম মোজাম্মেল হক দলীয় মনোনয়নের চিঠি পাননি। তাদের আসনেও দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। দলীয় সূত্র বলছে নানা দিক বিবেচনা করে আসন্ন নির্বাচনে পুরনো এমপিদের বেশিরভাগের ওপর ভরসা রাখছে আওয়ামী লীগ। দলের নীতি নির্ধারকরা মনে করছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে নির্বাচনটি দলের জন্য কঠিন চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

 

এ অবস্থায় এমপিদের নির্বাচন করার অতীত অভিজ্ঞতা রয়েছে। একই সঙ্গে এতদিন প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করে আসা এমপির প্রশাসনের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখে নির্বাচন পরিচালনা করতে পারবেন। এছাড়া নির্বাচন পরিচালনায় আর্থিক সক্ষমতা ও দলীয় কোন্দল রোধে শক্ত ভূমিকা রাখতে বর্তমান এমপিদেরই বেশি যোগ্য বলে মনে করছে দল।

 

 

এদিকে উৎসব মুখর পরিবেশে গতকাল সকাল থেকে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ক থেকে প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়নের চিঠি গ্রহণ করেন। কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে মিছিল সহকারে তারা সেখানে যান। আবার মিছিল নিয়ে ফিরেন। আলোচিত সিলেট-১ আসনে এবার মনোনয়ন পেয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ছোট ভাই ড. একে আবদুল মোমেন। অনেক দিন থেকে এ আসনটি নিয়ে নানা আলোচনা ছিল। দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা গোপালগঞ্জ-৩ ও রংপুর-৬ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন। এ ছাড়া দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নোয়াখালীর একটি আসনে লড়বেন। সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম গুরুতর অসুস্থ থাকলেও তাকেই মনোনয়ন দেয়া হয়েছে কিশোরগঞ্জ-১ আসনে। যদিও এ আসনে একজন বিকল্প প্রার্থী রাখা হয়েছে। সাবেক আইজিপি নুর মোহাম্মদ নতুন মুখ হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন কিশোরগঞ্জ-২ আসনে। যেসব আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মনোনয়ন দেয়নি ওইসব আসনে মহাজোট ও শরিক দলের প্রার্থীর জন্য ছেড়ে দেয়া হবে।

 

মনোনয়ন পেলেন যারা: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদের যারা গতকাল পর্যন্ত দলীয় মনোনয়নের চিঠি পেয়েছেন তাদের তালিকা নিচে দেয়া হলো।

 

 

ঢাকা বিভাগ: ঢাকা-১: সালমান এফ রহমান, ঢাকা-২: কামরুল ইসলাম, ঢাকা-৩: নসরুল হামিদ বিপু, ঢাকা-৫: হাবিবুর রহমান মোল্লা, ঢাকা-৭: হাজী সেলিম, ঢাকা-৯: সাবের হোসেন চৌধুরী, ঢাকা-১০: শেখ ফজলে নূর তাপস, ঢাকা-১১: একেএম রহমতুল্লাহ, ঢাকা-১২: আসাদুজ্জামান খান কামাল, ঢাকা-১৩: সাদেক খান, ঢাকা-১৪: আসলামুল হক, ঢাকা-১৫: কামাল আহমেদ মজুমদার, ঢাকা-১৬: মো. ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ, ঢাকা-১৭: আকবর হাসান পাঠান ফারুক, ঢাকা-১৮: সাহারা খাতুন, ঢাকা-১৯: ডা. এনামুর রহমান, ঢাকা-২০: বেনজীর আহমেদ।  টাঙ্গাইল-১: ড. আবদুর রাজ্জাক, টাঙ্গাইল-৩: তানভীর হাসান, টাঙ্গাইল-৩: আতাউর রহমান খান, টাঙ্গাইল-৪: হাসান ইমাম খান, টাঙ্গাইল-৫: মো. সানোয়ার হোসেন, টাঙ্গাইল-৬: খন্দকার আবদুল বাতেন, টাঙ্গাইল-৭: একাব্বর হোসেন, টাঙ্গাইল-৮: এডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম।  কিশোরগঞ্জ-১: সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম/মশিউর রহমান হুমায়ুন, কিশোরগঞ্জ-২: নূর মোহাম্মদ, কিশোরগঞ্জ-৪: রেজোয়ান আহাম্মেদ তৌফিক, কিশোরগঞ্জ-৫: আফজাল হোসেন, কিশোরগঞ্জ-৬: নাজমুল হাসান পাপন, মানিকগঞ্জ-১: এ এম নাঈমুর রহমান দুর্জয়, মানিকগঞ্জ-২: মমতাজ বেগম, মানিকগঞ্জ-৩: জাহিদ মালেক স্বপন, মুন্সীগঞ্জ-২: সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, মুন্সীগঞ্জ-৩: অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস। গাজীপুর-১: আ ক ম মোজাম্মেল হক, গাজীপুর-২: জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর-৩: ইকবাল হোসেন সবুজ, গাজীপুর-৪: সিমিন হোসেন রিমি, গাজীপুর-৫: মেহের আফরোজ চুমকী। নরসিংদী-১: নজরুল ইসলাম হীরু, নরসিংদী-২: আনোয়ারুল আশরাফ খান, নরসিংদী-৩: জহিরুল হক ভূঁইয়া মোহন, নরসিংদী-৪: নুরুল মজিদ আহমেদ হুমায়ুন, নরসিংদী-৫: রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু। নারায়ণগঞ্জ-১: গোলাম দস্তগীর গাজী, নারায়ণগঞ্জ-২: নজরুল ইসলাম বাবু, নারায়ণগঞ্জ-৪: একেএম শামীম ওসমান। রাজবাড়ী-১: কাজী কেরামত আলী, রাজবাড়ী-২: মো. জিল্লুল হাকিম।  ফরিদপুর-১: মনজুর হোসেন, ফরিদপুর-৩: খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ফরিদপুর-৪: কাজী জাফরুল্লাহ। গোপালগঞ্জ-১: ফারুক খান, গোপালগঞ্জ-২: শেখ ফজলুল করিম সেলিম, গোপালগঞ্জ-৩: শেখ হাসিনা।  মাদারীপুর-১: নূর ই আলম চৌধুরী লিটন, মাদারীপুর-২: শাজাহান খান, মাদারীপুর-৩: আবদুস সোবহান গোলাপ। শরীয়তপুর-১: ইকবাল হোসেন অপু, শরীয়তপুর-২: একেএম এনামুল হক শামীম, শরীয়তপুর-৩: নাহিম রাজ্জাক।

 

 

চট্টগ্রাম বিভাগ: ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১: বদরুদ্দোজা মো. ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩: র আ ম উবায়দুল মোক্তাদির চৌধুরী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪: আনিসুল হক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫: মো. এবাদুল করিম বুলবুল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬: এ বি তাজুল ইসলাম। কুমিল্লা-১: মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভূঁইয়া, কুমিল্লা-২: সেলিমা আহমাদ মেরী, কুমিল্লা-৩: ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন, কুমিল্লা-৪: রাজী মোহাম্মদ ফখরুল, কুমিল্লা-৫: আবদুল মতিন খসরু, কুমিল্লা-৬: আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, কুমিল্লা-৭: আলী আশরাফ, কুমিল্লা-৯: মো. তাজুল ইসলাম, কুমিল্লা-১০: আ হ ম মুস্তফা কামাল, কুমিল্লা-১১: মুজিবুল হক।

 

চাঁদপুর-১: মহীউদ্দীন খান আলমগীর/গোলাম হোসেন, চাঁদপুর-২: মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, চাঁদপুর-৩: দীপু মনি, চাঁদপুর-৪: মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়া।

 

ফেনী-২: নিজামউদ্দিন হাজারী, নোয়াখালী-১: এইচ এম ইব্রাহিম, নোয়াখালী-২: মোর্শেদ আলম, নোয়াখালী-৩: মো. মামুনুর রশীদ কিরন, নোয়াখালী-৫: ওবায়দুল কাদের।
লক্ষ্মীপুর-৩: একেএম শাহজাহান কামাল, চট্টগ্রাম-১: ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, চট্টগ্রাম-৭: হাছান মাহমুদ, চট্টগ্রাম-৯: মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, চট্টগ্রাম-১০: আফসারুল আমীন, চট্টগ্রাম-১৩: সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। কক্সবাজার-১: জাফর আলম, কক্সবাজার-২: আশেক উল্লাহ রফিক, কক্সবাজার-৩: সাইমুম সারোয়ার কমল, কক্সবাজার-৪: শাহিনা আক্তার চৌধুরী, খাগড়াছড়ি: কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, বান্দরবান: বীর বাহাদুর উসৈ সিং।

 

 

রাজশাহী বিভাগ: বগুড়া-১: আবদুল মান্নান, বগুড়া-৫: মো. হাবিবুর রহমান, জয়পুরহাট-১: শামসুল আলম দুদু, জয়পুরহাট-২: আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, নওগাঁ-১: সাধন চন্দ্র্র মজুমদার, নওগাঁ-২: শহিদুজ্জামান সরকার, নওগাঁ-৪: ইমাজউদ্দিন প্রামাণিক, নওগাঁ-৫: নিজাম উদ্দিন জলিল, নওগাঁ-৬: মো. ইসরাফিল আলম, রাজশাহী-১: ওমর ফারুক চৌধুরী, রাজশাহী-৪: এনামুল হক, রাজশাহী-৬: মো. শাহরিয়ার আলম, নাটোর-৩: জুনায়েদ আহম্মেদ পলক, নাটোর-৪: আবদুল কুদ্দুস, পাবনা-১: মো. শামসুল হক টুকু, পাবনা-২: আহমেদ ফিরোজ কবির, পাবনা-৩: মকবুল হোসেন, পাবনা-৪: শামসুর রহমান শরিফ ডিলু, পাবনা-৫: গোলাম ফারুক খন্দকার প্রিন্স, সিরাজগঞ্জ-১: মোহাম্মদ নাসিম, সিরাজগঞ্জ-২:  মো. হাবিবে মিল্লাত, সিরাজগঞ্জ-৩: ডা. আবদুল আজিজ, সিরাজগঞ্জ-৪: তানভীর ইমাম, সিরাজগঞ্জ-৫: আব্দুল মজিদ ম-ল, সিরাজগঞ্জ-৬: হাসিবুর রহমান খান স্বপন।

 

 

রংপুর বিভাগ: পঞ্চগড়-১: মো. মাজহারুল হক প্রধান, পঞ্চগড়-২: মো. নুরুল ইসলাম সুজন, ঠাকুরগাঁও-১: রমেশ চন্দ্র সেন, ঠাকুরগাঁও-২: মো. দবিরুল ইসলাম, দিনাজপুর-২: খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দিনাজপুর-৩: ইকবালুর রহিম, দিনাজপুর-৪: আবুল হাসান মাহমুদ আলী, দিনাজপুর-৫: মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার, দিনাজপুর-৬: শিবলী সাদিক, নীলফামারী-১: আফতাব উদ্দিন সরকার, নীলফামারী-২: আসাদুজ্জামন নূর, লালমনিরহাট-১: মো. মোতাহার হোসেন, লালমনিরহাট-২: নুরুজ্জামান আহমেদ।

 

 

রংপুর-৪: টিপু মুনশি, রংপুর-৫: এইচএন আশিকুর রহমান, রংপুর-৬: শেখ হাসিনা, গাইবান্ধা-২: মাহবুব আরা বেগম গিনি, গাইবান্ধা-৩: মো. ইউনুস আলী সরকার, কুড়িগ্রাম-৪: জাকির হোসেন।
ময়মনসিংহ বিভাগ: ময়মনসিংহ-১: জুয়েল আরেং, ময়মনসিংহ-২: শরীফ আহম্মেদ, ময়মনসিংহ-৬: মো. মোসলেম উদ্দিন, ময়মনসিংহ-৭: মাওলানা রুহুল আমিন মাদানী, ময়মনসিংহ-১০: ফাহমি গোলন্দাজ বাবেল, জামালপুর-৩: মির্জা আজম, জামালপুর-৪: মো. মুরাদ হাসান, জামালপুর-৫: মোজাফ্ফর হোসেন/রেজাউল করিম হীরা, নেত্রকোনা-১: মানু মজুমদার, শেরপুর-১: আতিউর রহমান আতিক, শেরপুর-২: মতিয়া চৌধুরী, শেরপুর-৩: এ কে এম ফজলুল হক চান, নেত্রকোনা-২: আশরাফ আলী খান খসরু, নেত্রকোনা-৩: অসীম কুমার উকিল, নেত্রকোনা-৪: রেবেকা মমিন, নেত্রকোনা-৫: ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল।

 

খুলনা বিভাগ: মেহেরপুর-১: ফরহাদ হোসেন, কুষ্টিয়া-১: আ ক ম সারোয়ার জাহান, কুষ্টিয়া-৩: মাহবুব উল আলম হানিফ, কুষ্টিয়া-৪: সেলিম আলতাফ জর্জ, চুয়াডাঙ্গা-১: সোলায়মান হক জোয়ারদার সেলুন, চুয়াডাঙ্গা-২: আলী আসগর টগর, ঝিনাইদহ-১: মো. আব্দুল হাই, ঝিনাইদহ-৩: মো. শফিকুল আজম খান, যশোর-১: শেখ আফিল উদ্দিন, যশোর-২: মেজর জেনারেল (অব.) নাসির উদ্দিন, যশোর-৩: কাজী নাবিল আহম্মেদ, যশোর-৪: রণজিত কুমার রায়, যশোর-৫: স্বপন ভট্টাচার্য, যশোর-৬: ইসমাত আরা সাদেক, মাগুরা-১: সাইফুজ্জামান শিখর, মাগুরা-২: বীরেন শিকদার, নড়াইল-২: মাশরাফি বিন মর্তুজা।
বাগেরহাট-১: শেখ হেলাল উদ্দিন, বাগেরহাট-২: শেখ তন্ময়, বাগেরহাট-৩: হাবিবুন নাহার, বাগেরহাট-৪: মোজাম্মেল হোসেন, খুলনা-১: পঞ্চানন বিশ্বাস, খুলনা-২: শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল, খুলনা-৩: বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, খুলনা-৪: আব্দুস সালাম মুর্শেদী, খুলনা-৫: নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, খুলনা-৬: আকতারুজ্জামান বাবু, সাতক্ষীরা-২: মীর মোশতাক আহমেদ রবি, সাতক্ষীরা-৩: আ ফ ম রুহুল হক, সাতক্ষীরা ৪: এস এম জগলুল হায়দার।

 

 

বরিশাল বিভাগ: বরগুনা-১: ধীরেন্দ্র দেবনাথ সম্ভু, বরগুনা-২: শওকত হাচানুর রহমান রিমন, পটুয়াখালী-১: শাহজাহান মজুমদার, পটুয়াখালী-২: শামসুল হক রেজা, পটুয়াখালী-৩: এসএম শাহাজাদা, পটুয়াখালী-৪: মুহিবুর রহমান মুহিব, ভোলা-১: তোফায়েল আহমেদ, ভোলা-২: আলী আজম মুকুল, ভোলা-৩: নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন, ভোলা-৪: আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, বরিশাল-১: আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, বরিশাল-২: তালুকদার মো. ইউনুস, বরিশাল-৪: পঙ্কজ দেবনাথ, বরিশাল-৫: জেবুন্নেসা আফরোফ, ঝালকাঠি-২: আমির হোসেন আমু, পিরোজপুর-১: শ ম রেজাউল করিম।

 

 

সিলেট বিভাগ: সিলেট-১: এ কে আবদুল মোমেন, সিলেট-৩: মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী কায়েস, সিলেট-৪: ইমরান আহমদ, সিলেট-৬: নুরুল ইসলাম নাহিদ, মৌলভীবাজার-১: মো. শাহাব উদ্দিন, মৌলভীবাজার-৩: নেসার আহম্মেদ, মৌলভীবাজার-৪: উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ, হবিগঞ্জ-২: মো. আব্দুল মজিদ খান, হবিগঞ্জ-৩: আবু জাহির, হবিগঞ্জ-৪: মাহবুব আলী, সুনামগঞ্জ-১: মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সুনামগঞ্জ-২: জয়া সেনগুপ্ত, সুনামগঞ্জ-৩: এম এ মান্নান, সুনামগঞ্জ-৫: মহিবুর রহমান মানিক।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ