jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ৬ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» জগন্নাথপুরে সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী শাহজাহান চৌধুরীর গোলাপ ফুল মার্কার সমর্থনে গণসংযোগ «» সিলেট-২ আসনে প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী পেলেন প্রতিক «» হবিগঞ্জে বিল দখল নিয়ে সংঘর্ষ: নিহত ১, আহত ২০ «» সিলেট-২ আসনে ইলিয়াসপত্নী লুনার প্রার্থীতা স্থগিত «» সুনামগঞ্জ-৫ অাসনে বিনা ভোটে অার সংসদ সদস্য নয়- মিজানুর রহমান চৌধুরী «» নৌকার বিজয়ের মাধ্যমে শেখ হাসিনাকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনতে হবে- মুহিবুর রহমান মানিক «» সুনামগঞ্জ-৩ অাসনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে মাঠে নামবেন অাজিজুস সামাদ ডন «» জগন্নাথপুরে বিএনপি থেকে অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী অাওয়ামীলীগে যোগদান «» বিশ্বনাথে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে প্রার্থীকে জরিমানা «» জগন্নাথপুরে আত্মহত্যার প্রতিকার বিষয়ে সেমিনার


বিশ্বনাথে মাত্র দেড় কিলোমিটার রাস্তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি কামনা

মো. আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: বিশ্বনাথ খাজ্ঞানসীগাঁও রাস্তা হইতে রামধানা আশুগঞ্জ বাজার সংযোগ সড়কটি পড়ে আছে অবহেলায়। আশুগঞ্জ হাইস্কুলে ও স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় যাওয়ার একমাত্র রাস্তাটি কাঁচা অবস্থায় পড়ে রয়েছে দীর্ঘদিন যাবৎ। প্রতিদিন এলাকাবাসীসহ শত শত ছাত্রছাত্রী চলাচল করেন এই রাস্তা দিয়ে। মাত্র দেড় কিলোমিটার রাস্তাটি সামান্য বৃষ্টিতেই কাদায় পরিনত হয়। বিশেষ করে বর্ষাকালে এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করা দুঃসহ হয়ে পড়ে। এলাকার ভূক্তভোগীরা জনপ্রতিনিধিদের কাছে ধর্ণা দিতে দিতে অতিষ্ঠ হয়ে আছেন। জনপ্রতিনিধিসহ কতৃপক্ষের কোন নজর পড়ছেনা এই রাস্তাটির দিকে। মাত্র দেড় কিলোমিটার রাস্তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, ১৯৯১-১৯৯৬ সাল পর্যন্ত বিএনপির সরকার থাকাকালীন সময়ে এলাকার মানুষ আওয়ামী লীগের নৌকায় ভোট দেয় এমন অভিযোগ এনে রাস্তাটি করেন নাই ওই সময়ের সংসদ সদস্য। পরবর্তি ৫ বছর আওয়ামী লীগের সরকার থাকাকালীন সময়ে শাহ আজিজুর রহমান এম,পি তৎকালীন এল,জি, আর,ডি মন্ত্রী মরহুম জিল্লুর রহমান রাস্তাটি পাকাকরণে জন্য জোরালো ভাবে সুপারিস করেছিলেন। ২০০১ সালে বিএনপির এম.পি কালভার্ট ও রাস্তা না করে রাস্তার জন্য বরাদ্দকৃত টাকা অন্য রাস্তায় নিয়ে যায়। এরপর ২০১৩ সালে কালভার্টটি শফিকুর রহমান চৌধূরী এমপি জেলা পরিষদ মাধ্যমে কালভার্টটি করান। এরপর অনেক আশ্বাস পেলেও আর কোনো কাজ হয়নি এই রাস্তায়। এরপর গত ১০বছরে শেখ হাসিনার সরকার দেশে অভূতপূর্ণ উন্নয়ন হলেও এই রাস্তাটির দিকে কারো নজর পড়ে নি। মাত্র দেড় কিলোমিটার রাস্তার জন্য এলাকার মানুষকে অপরিসীম কষ্ট করতে হচ্ছে। এই রাস্তাটি পাকাকরণের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছেন এলাকাবাসী।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ