jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ১৮ই রমযান, ১৪৪০ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» ১৮ জুন জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন «» ওসমানীনগরে তালামীযের ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত «» সামাজিক সংগঠন ইয়ূথ-স্টাফ সিলেটের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» বিশ্বনাথে দিনমজুর পরিবারের উপর হামলা, আহত ৩ «» বিশ্বনাথে আ’লীগের ইফতার মাহফিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বেই দেশ হয়েছে ক্ষুধা-দারিদ্র, জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদ ও মাদকমুক্ত- শফিক চৌধুরী «» জগন্নাথপুরে তালামীযের অভিষেক ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত «» ছাত্র মজলিস প্রচলিত কোন সংগঠনের নাম নয় বরং একটি আদর্শিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান- সাইফুর রহমান খোকন «» ইফতার মাহফিলে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের মিলনমেলা : ঐতিহ্যবাহী বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের কর্মকান্ড সর্বমহলে প্রসংশিত- শফিকুর রহমান চৌধুরী «» নিরাপত্তা চেয়ে বিশ্বনাথের যুবকের আদালতে মামলা «» জ্যৈষ্ঠ মাসে নাইওরি আসে




বিশ্বনাথে মাত্র দেড় কিলোমিটার রাস্তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি কামনা

মো. আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: বিশ্বনাথ খাজ্ঞানসীগাঁও রাস্তা হইতে রামধানা আশুগঞ্জ বাজার সংযোগ সড়কটি পড়ে আছে অবহেলায়। আশুগঞ্জ হাইস্কুলে ও স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় যাওয়ার একমাত্র রাস্তাটি কাঁচা অবস্থায় পড়ে রয়েছে দীর্ঘদিন যাবৎ। প্রতিদিন এলাকাবাসীসহ শত শত ছাত্রছাত্রী চলাচল করেন এই রাস্তা দিয়ে। মাত্র দেড় কিলোমিটার রাস্তাটি সামান্য বৃষ্টিতেই কাদায় পরিনত হয়। বিশেষ করে বর্ষাকালে এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করা দুঃসহ হয়ে পড়ে। এলাকার ভূক্তভোগীরা জনপ্রতিনিধিদের কাছে ধর্ণা দিতে দিতে অতিষ্ঠ হয়ে আছেন। জনপ্রতিনিধিসহ কতৃপক্ষের কোন নজর পড়ছেনা এই রাস্তাটির দিকে। মাত্র দেড় কিলোমিটার রাস্তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, ১৯৯১-১৯৯৬ সাল পর্যন্ত বিএনপির সরকার থাকাকালীন সময়ে এলাকার মানুষ আওয়ামী লীগের নৌকায় ভোট দেয় এমন অভিযোগ এনে রাস্তাটি করেন নাই ওই সময়ের সংসদ সদস্য। পরবর্তি ৫ বছর আওয়ামী লীগের সরকার থাকাকালীন সময়ে শাহ আজিজুর রহমান এম,পি তৎকালীন এল,জি, আর,ডি মন্ত্রী মরহুম জিল্লুর রহমান রাস্তাটি পাকাকরণে জন্য জোরালো ভাবে সুপারিস করেছিলেন। ২০০১ সালে বিএনপির এম.পি কালভার্ট ও রাস্তা না করে রাস্তার জন্য বরাদ্দকৃত টাকা অন্য রাস্তায় নিয়ে যায়। এরপর ২০১৩ সালে কালভার্টটি শফিকুর রহমান চৌধূরী এমপি জেলা পরিষদ মাধ্যমে কালভার্টটি করান। এরপর অনেক আশ্বাস পেলেও আর কোনো কাজ হয়নি এই রাস্তায়। এরপর গত ১০বছরে শেখ হাসিনার সরকার দেশে অভূতপূর্ণ উন্নয়ন হলেও এই রাস্তাটির দিকে কারো নজর পড়ে নি। মাত্র দেড় কিলোমিটার রাস্তার জন্য এলাকার মানুষকে অপরিসীম কষ্ট করতে হচ্ছে। এই রাস্তাটি পাকাকরণের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছেন এলাকাবাসী।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ