jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ৩০শে জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» জগন্নাথপুরে ট্রাক্টর চাপায় নিহত ১ : সাবেক পৌর চেয়ারম্যান সহ আহত ৪ «» আত্বনিরাপত্বা ও সুন্দর দেহ গঠনে মার্শালাটের বিকল্প নাই «» বিশ্বনাথে প্রাথমিক স্টুডেন্ট কাউন্সিল সম্পন্ন «» বিশ্বনাথে আশুগঞ্জ স্কুল রহস্যজনক চুরি : নৈশ্য প্রহরী আটক «» ছাতক-দোয়ারার মুহিবুর রহমান মানিক একজন উন্নয়ন প্রেমি সাংসদ- পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান «» দোয়ারায় আগুন লাগানোর সাথে জড়িত কেউ ক্ষমা পাবে না- সার্কেল বিল্লাল «» বিশ্বনাথে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাহিদুজ্জামানের দাফন সম্পন্ন «» জগন্নাথপুরে ছাত্র মজলিসের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ গোলাম আসগর রহঃ এর জীবন ও কর্ম আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» বিশ্বনাথে বন্ধুক যুদ্ধে নিহত ডাকাতের পরিচয় সনাক্ত «» জগন্নাথপুর পৌরসভার উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে অংশ নিবেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী টি এফ শিমুল




বিশ্বনাথে বিরল রোগে আক্রান্ত জিলু’ মিয়া

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: অর্থাভাবে চিকিৎসা বন্ধ রয়েছে বিরল রোগে আক্রান্ত সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দিনমজুর জিলু মিয়ার। মাথা ও মুখের ডান দিকের পুরো অংশ জুড়ে অদ্ভুত রকমের ঝুলন্ত মাংসলপিণ্ড আর সারা শরীরে ছোট বড় অসংখ্য গোটা নিয়ে দুঃসহ মানবেতর জীবনযাপন করছেন।
সামান্য ভিটে ছাড়া সহায় সম্বল কিছু না থাকায় অর্থাভাবে চিকিৎসাও করাতে পারছেন না তিনি। সুস্থ্য স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।
উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের পাকিছিরি গ্রামের সাদক আলীর পুত্র জিলু মিয়া।
বৈবাহিক জীবনে চার সন্তানের জনক। অন্যের কাজ করে রোজগার করা অর্থ ও সরকার থেকে পাওয়া পঙ্গু ভাতা দিয়েই টেনেটুনে সংসার চালাতে হয় তাকে।
ফলে, ভাল চিকিৎসা নেওয়া হয় না তার।
জিলু মিয়া জানান, ৭ বছর বয়সে মাথার মধ্যে একটি গোটা বের হয়। ধীরে ধীরে মুখে ও শরীরে আরো গোটা বের হতে থাকে। স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা করালেও কোনো সুফল পাইনি। এক সময় গোটাগুলো বড় আকার ধারণ করে মাথা ও মুখের ডানদিক ভর্তি হয়ে যায়। ঢেকে ফেলে আমার ডান চোখও। একই রকম ছোট বড় অসংখ্য গোটা পুরো শরীরজুড়ে রয়েছে। সর্বশেষ যখন ডাক্তারের শরণাপন্ন হই, তখন তিনি বললেন চিকিৎসার জন্যে ঢাকা যেতে হবে। কিন্তু আমার সেরকম সাধ্য নেই। ’

জিলু মিয়া আরো বলেন, ‘এই রোগ নিয়ে দীর্ঘ এতটা বছর ধরে দিনমজুরের কাজ করে সংসার চালাচ্ছি। যদি সমাজের বিত্তবানরা এই অসহায়ের পাশে এসে দাঁড়ান, তবে হয়তো সুস্থ্য স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারব আমি। ’
খাজাঞ্চী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তালুকদার মো. গিয়াস উদ্দিন বলেন, বিরল রোগে আক্রান্ত জিলু মিয়াকে পঙ্গু ভাতা দেয়া হয়। তার চিকিৎসার জন্যে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসা উচিত। বিত্তবানদের আর্থিক সহযোগিতাই পারে জিলু মিয়াকে সুস্থ্য স্বাভাবিক জীবনে ফেরাতে।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ