jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ২৪শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» সিলেটে আন্দোলন সংগ্রামের বীর সৈনিক আলহাজ্ব সৈয়দ আতাউর রহমানের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত «» জনগণের সাথে পুলিশকে আরো ভাল আচরণ করতে হবে- সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বিপিএম «» দেশে ফিরেছেন ৩৪ হাজার ৯শ’ ৯২ হাজী «» মাইকিং করে ৪২ মণ ওজনের সেই আলোচিত ষাঁড় ‘টাইগারকে জবাই করে গোস্ত বিক্রি «» বালাগঞ্জে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির প্রচেষ্টায় শিক্ষার্থীদের ভাড়া কমানোর সিন্ধান্ত «» সিলেট সিটির ২০১৯-২০ অর্থবছরের ৭৮৯ কোটি ৩৮ লাখ ৪৭ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা «» সৌদীআরবে আঞ্জুমানের সমাবেশ অনুষ্ঠিত «» শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় অধ্যাপক মোজাফফরকে শেষ বিদায় «» ইউরোপের সবচেয়ে বড় মসজিদ উদ্বোধন রাশিয়ায় «» সুনামগঞ্জে রিপোর্টার্স ইউনিটি’র কমিটি গঠন




জগন্নাথপুরে দুর্গত কৃষকদের জন্য সুখবর

মো.শাহজাহান মিয়া :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বন্যা কবলিত দুর্গত কৃষকদের জন্য সুখবর দিয়েছে সরকার। এবার আর ১০ মন করে নয়, জনপ্রতি ৭৫ মন করে ধান বিক্রি করতে পারবেন। নতুন করে তালিকা করা হচ্ছে বঞ্চিত কৃষকদের। যারা বন্যার পানিতে গোলায় থাকা ধান নিয়ে রীতিমতো বিপদে ছিলেন। এখন সরকারের কাছে উচ্চ মূল্যে ধান বিক্রি করে লাভবান হতে পারবেন। সেই সাথে ধান নিয়ে আর বিপদে পড়তে হবে না। এছাড়া কৃষকদের ভোগান্তি লাঘবে ১৬ জুলাই মঙ্গলবার থেকে জগন্নাথপুর উপজেলা কৃষি অফিস ও উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিসের যৌথ উদ্যোগে বন্যা কবলিত কৃষকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কৃষকদের ধান কেনা হচ্ছে। এ সময় তাদের ধান পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে মান সম্মত ধান কিনে রশিদ দেয়া হচ্ছে। এবার উপজেলা খাদ্য গোদামে ধান বিক্রি করতে আর কোন সমস্যা নেই। এর মধ্যে যাদের ধান মান সম্মত নয়, তাদেরকে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।
জগন্নাথপুর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক ধীরাজ নন্দী চৌধুরী ও উপজেলা খাদ্য গোদাম কর্মকর্তা (ওসিএলএসডি) আবদুল হান্নান কামাল বলেন, প্রথম ধাপে কৃষকদের কাছ ১০৪০ টাকা মণ দরে জনপ্রতি ১০ মণ করে ৬০১ মেট্রিকটন ধান কেনা হয়েছে। এবার সরকার দ্বিতীয় দফায় একই দামে জনপ্রতি ৩ মণ থেকে ৭৫ মণ পর্যন্ত ধান কিনছে। এ কার্যক্রম গত ৯ জুলাই থেকে শুরু হয়ে গেছে। এ সুবিধা প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে তালিকাভূক্ত কৃষকরা পাচ্ছেন। জগন্নাথপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শওকত ওসমান মজুমদার বলেন, ১৭ জুলাই বুধবার থেকে দ্বিতীয় ধাপে কৃষকদের তালিকা প্রণয়নের কাজ শুরু হচ্ছে। থাকবে ৩ দিন পর্যন্ত। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জগন্নাথপুর পৌরসভা সহ প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদে বুধবার থেকে কৃষকদের তালিকা করা হবে। তবে দ্বিতীয় ধাপে কৃষকদের তালিকা করার কারণে আগে বঞ্চিত কৃষকরা সুযোগ পাচ্ছেন তাদের কাঙ্খিত উচ্চ মূল্যে সরকারের কাছে ধান বিক্রি করার। এতে সব থেকে বেশি উপকৃত হচ্ছেন বন্যা কবলিত কৃষকরা।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ