jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ১৬ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :




বিশ্বনাথে রাস্তায় দেয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১১

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে বাড়ির রাস্তায় দেয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার দেওকলস ইউনিয়নের মটুককোনা গ্রামের মৃত নুরুজ আলীর ছেলে যুক্তরাজ্য প্রবাসী আখতার হোসেন ও আব্দুল আহাদের ছেলে সেলিম মিয়া পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। এতে মধ্যস্থতাকারী সহ উভয় ১১ জন আহত হয়েছেন। উভয় পক্ষের আহতরা হলেন- যুক্তরাজ্য প্রবাসী আখতার হোসেন (৪০), তার ছোট ভাই শাহজাহান মিয়া (৩৫), মিজানুর রহমান (৩০), ফারহান হোসেনকে (২৫), রেজওয়ান আহমদ (২৬) ও ছোট বোন তান্নি বেগম (২০), সেলিম মিয়া (৩৮), তার ছোট ভাই সায়েখ মিয়া (৩২), লায়েক মিয়া (২৬) এবং মধ্যস্থতাকারী একই গ্রামের হুসিয়ার আলীর ছেলে জাকির হোসেন (১৮) ও মটর আলীর ছেলে রুশন আলী (২৭)। গুরুত্বর আহতদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মটুককোনা গ্রামের আখতার হোসেন ও সেলিম আহমদ একে অপরের চাচাতো ভাই ও পাশাপাশি বাড়ির বাসিন্দা। আর দুই বাড়ির মধ্যখানে সরকারি গোপাটকেই রাস্তা হিসেবে উভয় পক্ষ ব্যবহার করে আসছেন। বৃহস্পতিবার সেলিম আহমদ পক্ষের লোকজন তাদের বাড়ির সামনে ওই রাস্তায় দেয়াল নির্মাণ করে দখল করতে চাইলে এতে বাঁধা দেন আখতার হোসেন পক্ষের লোকজন। এসময় কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।
আখতার হোসেনের দাবি, প্রতিপক্ষের লোকজন দেয়াল নির্মাণ করে বাড়ির রাস্তা বন্ধ করতে চাইলে তারা বাঁধা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সেলিমসহ প্রতিপক্ষের লোকজন তাদের উপর হামলা করেন।
এবিষয়ে জানতে চাইলে সেলিম আহমদ কিংবা তার অপর ভাইদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাদের কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা বলেন, মারামারির খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থলে পুলিশ প্রেরণ করা হয়। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ