jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ২রা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» জগন্নাথপুরে আওয়ামীলীগ নেতা আবুল কয়েছ ইসরাঈল’র ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে জমিয়ত নেতা মাওঃ আব্দুস সালাম মুরাদাবাদীর ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে যুবদল নেতা সৈয়দ শফিকুর রহমানের ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে ছাত্রলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম জামালের ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে ওদুদ কামালীর ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে আব্দুল কামালীর ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে সোহেল আহমদ খান টুনুর ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও সিদ্দিক আহমদের আদর্শের কর্মী আব্দুস সত্তারের ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি কবির আহমদ হীরা’র ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে ইউপি সদস্য ছাত্রলীগ নেতা মাহবুব হোসেনের ঈদ শুভেচ্ছা




ছাতকে সরকা‌রি প্রাথমিক বিদ্যালয় যেন লাল-সবুজের একখন্ড বাংলাদেশ

আ‌নোয়ার হো‌সেন র‌নি, ছাতক থে‌কে :: “আমার বিদ্যালয়, আমার স্বপ্ন” এ শ্লোগানে সুন‌ামগঞ্জ‌ জেলার শিল্প নগরৗ ছাতক উপ‌জেলার ১৩টি ইউ‌নিয়ন ও এক‌টি পৌরসভা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিটি ভবনকেই লাল-সবুজে শোভিত করা হচ্ছে। লাল-সবুজে জাতীয় পতাকার চিত্রে মোড়ানো ওইসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লক্ষ্য একটাই শিশুদের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ ছড়িয়ে দেয়া হ‌চ্ছে। এছাড়া বিদ্যালয় ভবন লাল-সবুজে শোভিত হওয়ায় এখানকার শিশুরা স্কুলগামী হচ্ছে। তাদের আকর্ষণ বাড়ছে জাতীয় পতাকা এবং জাতীয় সঙ্গীতের প্রতি। এতে করে  উপজেলার ছৈলাআফজলাবাদ ইউ‌নিয়‌নে ম‌ডেল সরকা‌রি প্রাথ‌মিক বিদ্যালয় এখন শিক্ষার্থী ঝরেপড়াও কমছে ব‌লে প্রধান মোস্তাক হো‌সেন দাবী ক‌রেন।

ছাতক উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও প্রধান শিক্ষক স‌মি‌তি সাধারন সম্পাদক জয়নাল আ‌বেদীন সহ এ ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগটি গ্রহণ করেছে। ভবনগুলো রাঙানো হচ্ছে পেশাদার শিল্পীদের দিয়ে নানা র‌ঙে আকা ছ‌বি। কোন কোন স্কুলের ভেতরের দেয়ালও একইভাবে মনোরম চিত্রে শোভিত করা হচ্ছে। সেখানে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন চিত্রকেও প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে।

ছাতক উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চলে এ উদ্যোগ বাস্তবায়নে কাজ করছেন সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মাছুম মিয়া । ইতিমধ্যে তিনি গো‌বিন্দগঞ্জ ম‌ডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বেরাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, লা‌কেশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও রাজা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনকে লাল-সবুজে শোভিত করেছেন। তাঁর ক্লাস্টারের সবগুলো প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনকেই একই সাঁজে সজ্জিত করা হচ্ছে।

উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক জয়নাল আ‌বেদীন বলেন, ‘এটি একটি মডেল’। ‘লাল-সবুজ পতাকায় মোড়ানো ভবন মানেই সেটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এজন্য কাউকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় খুঁজে বের করতে কষ্ট করতে হয়না।’

গো‌বিন্দগঞ্জ ম‌ডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিক মোস্তাক হো‌সেন বলেন, জাতীয় শহীদ মিনার (সাত কাটা ) ১৯৫২ সা‌লের ভাষা আন্দোলন, ১৯৫৪ সা‌লে যুক্তফ্রন্ট নিবাচন,১৯৫৬ সা‌লের শাসনতন্ত্র আ‌ন্দোলন, ১৯৬২সা‌লের শিক্ষা আন্দোলন, ১৯৬৬ এর ছয় দফা আ‌ন্দোলন, ১৯৬৯ গনঅভ্যুন্খান, ১৯৭২সাা‌লের মহান মু‌ক্তি‌যোদ্ধাসহ বিদ্যালয়ের বাহিরের কাঠামো সহ প্রতিটি শ্রেণিকক্ষকেও বাংলার ঐতিহ্যে রাঙানো হচ্ছে।

সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মাছুম মিয়া বলেন, ‘প্রথম শ্রেণীতে পড়া একটি ছোট্ট শিশু এ ভবন দেখে সহজেই জাতীয় পতাকা চিনতে পারবে। স্কুলে জাতীয় সঙ্গীত গাইতে সে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবে। লাল সবুজকে মন থেকে সে ভালোবাসতে শুরু করবে। জাতীয় পতাকার সাথে সাথে সে মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনতে দারুণ পছন্দ করবে। জাতীয় পতাকা, সঙ্গীত আর মুক্তিযুদ্ধ তার হৃদয়ে একাকার হয়ে যাবে। ফলে শিশুটি মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ নিয়েই বড় হয়ে উঠার পাশাপাশি একজন দেশপ্রেমিক নাগরিক হয়ে গড়ে উঠবে।’ প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণি সজ্জিতকরণ সহ লাল-সবুজের অবকাঠামো বিদ্যালয়গুলোকে দৃষ্টিনন্দন করেছে।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ