jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ৬ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ৪০ «» পিতা-মাতার ভরণ-পোষণ করায় বিশ্বনাথে সৎ ভাইয়ের উপর হামলা «» দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে পুলিশসহ শতাধিক আহত, আটক ৪৯ «» বিশ্বনাথে ঈদের দাওয়াতে নিয়ে ব্যবসায়ীকে কোপালো বন্ধু! «» করোনায় আক্রান্ত ছাতক হাসপাতালের (আর এমও) ডাঃ সাইদুর রহমান «» ভারতিও ঢলে বন্যায় প্লাবিত হতে পারে ছাতক, সুনামগঞ্জ ও সিলেট অঞ্চল «» ছাতকে লিচুর বাম্পার ফলন «» ছাতকে হাফিজ মামনুন সাইদকে সংবর্ধনা প্রদান «» সিলেটে করোনায় আক্রান্ত সাংবাদিক আবুল, বিশ্বনাথে একটি বাড়িসহ গ্রাম লকডাউন «» বিশ্বনাথে সাদা পোষাকে র‌্যাব সদস্য লাঞ্চিত: ব্যবসায়ীর ঘরে ভাংচুর-লুটপাটের অভিযোগ




আল্লাহ ও রাসুল (স.)কে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে সাধারণ মুসুল্লিদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষে নিহত ১, শতাধিক আহত

ডেস্ক রিপোর্ট :: ভোলায় হিন্দু ধর্মালম্বী এক ব্যক্তির আল্লাহ ও রাসুল (স.)কে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে সাধারণ মুসুল্লিদের ডাকা বিক্ষোভ কর্মসূচিতে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। আজ সকাল থেকে শুরু হওয়া সমাবেশে হঠাৎ পুলিশের সঙ্গে সাধারণ জনতার সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় গনি নামের এক কিশোরের মৃত্যু হয়।

 

এই ঘটনায় পুলিশসহ আহত শতাধিক বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। আহত পুলিশকে হাসপাতালে নিলেও সাধারণ মানুষ বিভিন্ন ঘরে আটকা পড়েছেন। এই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে গ্রামেগঞ্জেও। গুরুতর গুলিবিদ্ধ ৮ জনকে ভোলা সদর হাসপাতালে আনা হয়েছে।

 

 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিপ্লব চন্দ্রের ফেসবুক আইডি থেকে তার বন্ধু তালিকার বেশ কয়েকজনের কাছে আল্লাহ এবং রাসুল (সঃ) কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ভাষায় গালির ম্যাসেজ আসে।

 

বিপ্লব চন্দ্র শুভ বোরহানউদ্দিন উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের চন্দ্র মোহন বৈদ্দের ছেলের আইডি থেকে এই ম্যাসেজ আসাকে কেন্দ্র করে সাধারণ মুসুল্লিদের ব্যানারে আজ সকাল ১০টায় বিক্ষোভের ডাক দেয়া হয়। সকাল থেকে বোরহানউদ্দিন উপজেলার গ্রামগঞ্জ থেকে মুসুল্লিরা শহর অভিমুখে আসতে থাকে। এতে ভোলার প্রলিশ সুপার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য পুলিশ মোতায়েন করেন। পুলিশ সভা সংক্ষিপ্ত করার জন্য নির্দেশ দেয়ার পর পরেই সংঘর্ষের শুরু হয়। প্রথমে এক পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি ছুঁড়লে পুলিশের গুলিতে পথচারিসহ বিক্ষোভকারী আহত হন।

 

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ভোলা শহর পুলিশের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও গ্রামগঞ্জে বিক্ষোভ চলমান। ভোলা সদর পুলিশ লাইন্স থেকে অতিরিক্ত পুলি ডেকে পাঠানো হয়েছে।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ