jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ৩রা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» বিশ্বনাথে সাদা পোষাকে র‌্যাব সদস্য লাঞ্চিত: ব্যবসায়ীর ঘরে ভাংচুর-লুটপাটের অভিযোগ «» এডিশনাল এসপির রিপোট নেগেটিভ সুনামগঞ্জে স্বস্তি «» জগন্নাথপুরে এবার ঘরে ঘরে ঈদ পালন «» জগন্নাথপুরে দুপক্ষের ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষে আহত ৪০ «» আশারকান্দি ইউনিয়নে চেয়ারম্যন প্রার্থী আবু বকর খান খছরু’র ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে আওয়ামীলীগ নেতা আবুল কয়েছ ইসরাঈল’র ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে জমিয়ত নেতা মাওঃ আব্দুস সালাম মুরাদাবাদীর ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে যুবদল নেতা সৈয়দ শফিকুর রহমানের ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে ছাত্রলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম জামালের ঈদ শুভেচ্ছা «» জগন্নাথপুরে ওদুদ কামালীর ঈদ শুভেচ্ছা




ছাতক-দোয়ারার মেধাবী ছাত্রী ঝর্নার শাবিতে ভর্তির দায়িত্ব নিলেন আওয়ামীলীগ নেতা শামীম চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারের মেধাবী ছাত্রী ঝর্না আক্তারের সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সকল দায়িত্ব নিলেন কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক ছাতকের বাগবাড়ী এলাকার মৃত আরজ মিয়া চৌধুরীর গর্বিত সন্তান শামীম আহমদ চৌধুরী। তিনি শাবিত ভর্তি হওয়ার সকল অর্থনৈতি দায়িত্বভার গ্রহন করেছেন।

 

 

ঝর্না আক্তার দোয়ারা উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের আগনেরগাঁও গ্রামের মৃত হারিছ মিয়ার কন্যা। অদম্য মেধাবী ঝর্না আক্তার বড়খাল স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ন হয়। শাবির ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় ৩য় স্থান অধিকার করেও অর্থাভাবে ঝর্না আক্তার ভর্তি প্রায় অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। তার এ দুঃসময়ে পিতৃহীন ঝরণা আক্তারের পাশে দাঁড়ালেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক শামীম আহমদ চৌধুরী।

 

 

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পেয়েও এ মেধাবী ছাত্রীর ভর্তির অনিশ্চিয়তার বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে জেলা আওয়ামীলীগের নেতা শামীম আহমদ চৌধুরী দৃষ্টিগোচর হলে ঝর্নার ভর্তির ব্যাপারে সর্বাত্মক সহযোগিতার হাত প্রসারিত করেন তিনি। বুধবার (৬ নভেম্বর) শামীম আহমদ চৌধুরীর ছাতক শহরের বাগবাড়ীস্থ নিজ বাসভবনে ঝর্নাসহ তার পরিবারের হাতে শাবিতে ভর্তির সমুদয় টাকা তুলে দেন আওয়ামীলীগ নেতা শামীম আহমদ চৌধুরী।

 

 

এ সময় আবেগ-আপ্লোত হয়ে ঝর্ণার মা মনোয়ারা বেগম বলেন, তিনি ও তার পরিবার শামীম আহমদ চৌধুরীর কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকবে। ভর্তির জন্য তার মেয়েকে আর্থিক সহায়তা দিতে কয়েকটি সামাজিক সংগঠন ও অনেক ব্যক্তিবর্গ মোবাইল ফোনে আশ্বাস প্রদান করলেও সময়মতো কেউ এসে পাশে দাঁড়ায়নি। শামীম আহমদ চৌধুরী পাশে না দাঁড়ালে ঝর্নার শাবিতে ভর্তির বিষয়টি অনিশ্চিত হয়ে পড়তো। গরীবঃ-দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়াতে শামীম আহমদ চৌধুরীর মতো নেতার সমাজে অনেক প্রয়োজনীত রয়েছে।

 

 

এসময় দোয়ারাবাজার উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সদস্য ও সুরমা ইউনিয়নের সভাপতি শফিকুল ইসলাম আর্মি, ছাতক উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য কামাল আহমদ, বাংলাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ আব্দুস সামাদসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ