jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ৩রা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :




সিলেটবাসী জানান দিলো; নাদেল তাদের কত প্রিয়

আশীষ দে: বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক জননেতা শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল করোনা সংকটে সিলেটে সম্মুখ সারির একজন যুদ্ধা। করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকেই তিনি বৃহত্তর সিলেটের অলিগলিতে খাদ্য ও আর্থিক সহায়তাসহ জনসচেতনতা তৈরীর লক্ষ্যে নির্ঘুম দিন রাত কাটিয়েছেন। সংকটকালে যিনি জনতার পাশে থাকেন তিনিই প্রকৃত জনদরদী নেতা। শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল মৃত্যুভয়কে উপেক্ষা করে দিন রাত ছোটাছুটি করে মানুষের প্রয়োজনে ভরসার হাত বাড়াতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি নিজের অজান্তে অনিচ্ছাকৃতভাবে হলেও প্রমান করে দিলেন জনগনের কল্যানে তিনি জীবন বিসর্জন দিতেও প্রস্তুুত।

 

যার হাসিতে ও কথায় অমায়িক শুভ্রতা ছড়ায় এবং ব্যক্তিত্বে মানুষকে অনুপ্রেরণা যোগায় সেই মানব দরদী নেতা শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল এর ” করোনা পজিটিভ” আসার খবরে সিলেটসহ সারা বাংলাদেশ সরগরম। সকল শ্রেণীর পেশার মানুষের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ শুরু হয়েছে প্রিয় শফিউল আলম নাদেল এর করোনা আক্রান্ত হওয়ার সংবাদে। রাজনৈতিক সহযোদ্ধা, শুভাকাঙ্ক্ষী, ভক্ত, স্বজনসহ লক্ষ মানুষ সোস্যাল মিডিয়ায় নাদেল এর আশু রোগমুক্তি, দোয়া ও সহমর্মিতা জানিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন নাদেল তাদের কতটা আপন, কতটা প্রিয়, কতটা ভালোবাসার পাত্র।

 

 

শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল কোনো প্রতিদানের আশায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়াননি কিন্তুু তার করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর মানুষের ব্যাথিত প্রতিক্রিয়া ও তার প্রতি জনমানুষের ভালোবাসা দেখে নাদেল নিজেও আপ্লূত না হয়ে পারবেন না।
মানুষের কাছ থেকে সত্যিকারের ভালোবাসা আদায় করে নেওয়াটা হাতে গোনা কিছু নেতার পক্ষেই সম্ভব,নাদেল হয়তো তাদেরই একজন, যিনি জনমানুষকে নিখাদ ভালোবাসায় আপন করে নিয়েছিলেন বলেই তার অসুস্থতার সংবাদে মানুষ এতটা ব্যাথিত এতটা উদ্বিগ্ন।

 

সুসংবাদ ও স্বস্তির খবর হচ্ছে শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল পুরোপুরি সুস্থ আছেন, উনার শরীরে বড় কোন উপসর্গ নেই এবং উনি ভালো আছেন বলে নিজেই গনমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল ভাই- সারা সিলেটবাসী আপনার সুস্থতার জন্য আজ প্রার্থনা করছে। আপনি তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ফিরে আসুন।
সিলেটের গরীব দুঃখী মেহনতী মানুষগুলো আপনার অপেক্ষায়! সিলেটের রাজপথ আপনার অপেক্ষায়! সিলেটের প্রতিটি অলিগলি আপনার অপেক্ষায়!

 

লেখকঃ সাংবাদিক, সমাজকর্মী।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ