jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ২২শে জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» সিলেটে ছাত্রদলের নতুন ১৫টি ইউনিটের কমিটি গঠন «» বিপদে ৩০ লাখ মোবাইল ব্যবহারকারী, সতর্কতা জারি «» বিশ্বনাথে এমপি মোকাব্বিরের গাড়িতে হামলার ঘটনায় যুবলীগের সভাপতি গ্রেফতার «» জগন্নাথপুরে মিরপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপ-প্রচারে ইউনিয়নবাসীর প্রতিবাদের ঝড় «» দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ট্রাক সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ: নববধূসহ আহত ৬ «» সিলেটে ৪ অপহরণকারী গ্রেফতার : অপহৃত মাওঃ মোশাহিদ আলীকে উদ্ধার «» দক্ষিণ সুনামগঞ্জে নদী গর্ভে বিলীন হওয়ার পথে বসতবাড়ি «» সেপ্টেম্বরের শেষে এইচএসসি পরীক্ষা! «» গণপরিবহনে ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহারের দাবি «» সিলেট সিটির অন্তর্ভুক্ত হলো শাবিপ্রবি; পাবে বিশেষ সুবিধা




ছাতকে নৌকাভর্তি ত্রাণ নিয়ে মানুষের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন দু’ চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক :: মহামারি করোনা ভাইরাসের রেড জোনে ছাতক উপজেলা, অন্যদিকে আকস্মিক বন্যা, ঘূর্ণিঝড়ে বিপর্যস্ত জনজীবন। সেই মুহুর্তে টানা চার দিন ধরে সকাল থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত প্রাকৃতিক দূর্যোগ উপেক্ষা করে

 

নৌকায় দূর্গত এলাকায় মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রাণ বিতরণ করছেন উপজেলার জাউয়া বাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুরাদ হোসেন ও উত্তর খুরমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিল্লাল আহমেদ।

 

 

এ দুই চেয়ারম্যান উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। দু’ ইউনিয়ন ছাড়াও তাদের নেতৃত্বে পুরো উপজেলায় যুবলীগের নেতৃবৃন্দের মাধ্যমেও অসহায়দের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী পৌছানো হচ্ছে করোনা মহামারির শুরু থেকেই। করোনার এই দুঃসময়ে অনেক ইউপি চেয়ারম্যান যেখানে অনেকটাই ঘরমুখী অবস্থানে আছেন সেখানে জনগণের পাশে থেকে আস্থা অর্জন করছেন এ দুই ইউপি চেয়ারম্যান। উত্তর খুরমা ইউনিয়নের কাঞ্চনপুর গ্রামের জামাল আহমদ জানান, করোনার সঙ্কটে কাজেও যেতে পারছেন না মানুষ এর মধ্যে বন্যায় পানিবন্দী হয়ে ঘরে জমানো খাবারও ফুরিয়ে যাচ্ছিলো এই দূর্যোগে কোথাও ত্রাণ বা সাহায্যের জন্যও বাহিরে যাওয়ার সুযোগ নেই। এ সময়ে উত্তর খুরমা ইউপি চেয়ারম্যান নৌকা নিয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের খাদ্য সহায়তা দিচ্ছেন। যা অন্যান্য জনপ্রতিনিধিদের জন্য অনুকরনীয়।

 

 

উত্তর খুরমা ইউপি চেয়ারম্যান বিল্লাল আহমদ জানান, করোনার দূর্যোগ ছাড়াও আকস্মিক বন্যায় ইউনিয়নের প্রায় সকল গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। তাই পানিবন্দী মানুষ যাতে খাদ্য সংকটে না পড়তে হয় সেজন্য তিনি বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রাণ দিচ্ছেন। সরকারি ত্রানের পাশাপাশি নিজ উদ্যোগেও ত্রাণ দিচ্ছেন তিনি।

 

 

জাউয়াবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুরাদ হোসেন জানান, ইউনিয়নের অনেক ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট প্লাবিত হয়েছে বন্যায়। অনেক গ্রামের সাথে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। তাই অসহায়দের ঘরে ঘরে খাদ্য পৌঁছে দিতে তিনি একেকদিন একেক গ্রামে যাচ্ছেন।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ