jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ১৪ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :
«» সিলেটে আসা ২৮ যুক্তরাজ্য প্রবাসী করোনায় আক্রান্ত! «» নবীগঞ্জে কারচুপি করে আ.লীগ প্রার্থীকে পরাজিত করানোর অভিযোগ «» সিলেটে ছাত্র জমিয়তের র‌্যালি «» ছাতকে স্বেচ্ছাসেবকদলের কর্মী সমাবেশে “নেতৃত্ব হবে প্রতিযোগীতামূলক, প্রতিহিংসামূলক নয়”- ফরহাদ চৌধুরী শামীম «» বিশ্বনাথে এবার গরীবের পাশে দাঁড়াল পুলিশ «» জগন্নাথপুরে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদকের মৃত্যুতে ক্রিকেট এসোসিয়েশন’র শোক «» সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নে সোনাতনপুর বাজার পরিচালনা কমিটির অভিষেক সম্পন্ন «» বিশ্বনাথে জমিসহ ঘর পেল ১২০ পরিবার «» ছাতক সিমেন্ট কারখানা শ্রমিক-কর্মচারী সমবায় সমিতি’র ত্রিবার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন «» বিশ্বনাথে শিক্ষানুরাগী জমির আহমদ স্মরণে শোকসভা-মিলাদ মাহফিল




পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে সমর্থন দেয়ার অভিযোগে উপজেলা বিএনপির সভাপতি বহিষ্কার

ডেস্ক রিপোর্ট :: পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ছোট ভাইকে সমর্থন দেয়ার অভিযোগে নির্বাচনের তিন দিন আগে দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ খুরশীদ আলম মতিকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত চিঠিতেও একই কথা বলা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে- দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজে লিপ্ত থাকার সুনির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দলীয় গঠনতন্ত্রের ৫(গ) ধারা মোতাবেক দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ মো. খুরশীদ আলম মতিকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রাথমিক সদস্য পদসহ সব পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ফুলবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে ফুলবাড়ী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাহাদৎ আলীকে। তার বিপরীতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন খুরশীদ আলম মতির ছোটভাই শিল্পপতি মাহমুদ আলম লিটন। খুরশীদ আলম দলীয় প্রার্থীর সঙ্গে না থেকে নিজের ভাইয়ের পক্ষে থাকার কারণেই তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ খুরশিদ আলম মতি জানান, উপজেলা বিএনপির সিদ্ধান্ত ছাড়াই কয়েকজন জেলা বিএনপির সদস্য মনগড়া মতামতের ওপর ভিত্তি করে একজন জনসমর্থনহীন ব্যক্তিকে বিএনপির দলীয় মনোনয়ন দেয়ায় তিনি নির্বাচন কার্যক্রম থেকে সরে আছেন। তিনি জানান, তার ছোটভাই মাহমুদ আলম লিটন মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করলেও দলীয় প্রার্থী না হওয়ায় সেই নির্বাচনের কার্যক্রমেও তিনি অংশগ্রহণ করেননি। অথচ মাহমুদ আলম লিটন জাতীয়তাবাদী দলের একজন সাবেক ছাত্রনেতা ও বিএনপির সহায়তাকারী বলে জানান। তিনি বলেন, বহিষ্কারের বিষয়ে তাকে কোনো কারণ দর্শানোর নোটিশও করেনি কেন্দ্রীয় কমিটি।

 

উল্লেখ্য, ফুলবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে খাজা মঈনউদ্দীন, বিএনপির প্রার্থী হিসেবে সাহাদৎ আলী, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বর্তমান মেয়র মুরতজা সরকার মানিক এবং আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপির সভাপতি (বর্তমানে বহিষ্কৃত) অধ্যক্ষ খুরশীদ আলম মতির ছোটভাই মাহমুদ আলম লিটন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ