jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ১৭ই সফর, ১৪৪৩ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :




গণফোরাম এর কেন্দ্রীয় নির্বাহী সভাপতি হলেন মোকাব্বির খান

মো. আবুল কাশেম :: সিলেট-২ (ওসমানীনগর-বিশ্বনাথ) আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য, বিশিষ্ট রাজনীতিক মোকাব্বির খান গণফোরামের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সভাপতি হিসেবে মনোনিত হয়েছেন। গণফোরামের একমাত্র নির্বাহী সভাপতি হিসেবে তাঁকে দায়িত্ব দিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। নিজের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে ড. কামাল হোসেন বলেন, গঠনতন্ত্রের বিধান অনুযায়ী সভাপতির দায়িত্ব পালনে সভাপতিকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা প্রদানের লক্ষ্যে ১৬ আগষ্ট ২০২১ তারিখ হতে পরবর্তী জাতীয় কাউন্সিল না হওয়া পর্যন্ত আপনাকে (মোকাব্বির খান এম.পি) গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি পদে মনোনীত করা হয়েছে। আশা করি, আপনি গণফোরামের নীতি আদর্শ, উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য বাস্তবায়নে সচেষ্ট থাকবেন।

 

মোকাব্বির খান এমপি গণফোরামের জন্ম লগ্ন থেকে এর সাথে ওতোপ্রতোভাবে জড়িত রয়েছেন। প্রথম দিকে তিনি যুক্তরাজ্যে গণফোরামের নেতৃত্ব দিলেও পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটিতে নিজের স্থান করে নেন এবং বছরের পর বছর গণফেরামের আদর্শ, উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে নিরলস প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যান। গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য পদে দায়িত্বও তিনি নিষ্ঠার সাথে পালন করেন।

 

ন্যায়ভিত্তিক সমাজ ও রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় গণফোরাম দেশে বিদেশে যারা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, মোকাব্বির খান এম.পি হচ্ছেন তাদের অন্যতম একজন। তিনি ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় প্রতীক ‘উদীয়মান সূর্য’ নিয়ে সিলেট-২ (বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর) সংসদীয় আসন থেকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। বিরোধী দলীয় সদস্য হিসেবে তিনি জাতীয় সংসদে যোগদানের পর থেকে এখন পর্যন্ত গণমানুষের সত্যিকারের প্রতিনিধিত্ব করছেন। দূর্নীতি, অন্যায়, অপশাসন ও দলীয়করণসহ সরকারের গণস্বার্থ বিরোধী সকল পদক্ষেপের বিরুদ্ধে একমাত্র সোচ্চার কন্ঠ হিসেবে সংসদে সাহসী ভূমিকা রেখে চলেছেন।

 

গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি হিসেবে নতুন এই দায়িত্ব লাভের পর এক প্রতিক্রিয়ায় মোকাব্বির খান এম.পি বলেন, জাতির অভিভাবক, গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন দলের প্রধান হিসেবে তাঁকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করতে আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন, আমি তা যথাযথ নিষ্ঠার সাথে পালন করবো। তিনি বলেন, দলের সকল প্রবীণ ও নবীন নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে জাতীয় ঐকমত্য প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে একটি ন্যায়ভিত্তিক ও কল্যাণমুখী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় গণফোরামের আন্দোলনকে সফল করতে সচেষ্ঠ থাকবো। তিনি বলেন, গণফোরামকে গণমানুষের সংগঠন হিসেবে গড়ে তুলতে সারা দেশের নেতাকর্মীদের বলিষ্ট ভূমিকা নিশ্চিত করা হবে। এজন্য তিনি সকল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি।

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ